বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গে যাতে কোনও প্ররোচনা সৃষ্টির চেষ্টা সফল না হয় তার জন্য সবাইকে সতর্ক থাকার আবেদন করেছেন সিপিআই(এম)’র রাজ্য সম্পাদক সূর্য মিশ্র। শনিবার টুইটারে তিনি বলেছেন, ‘‘আমাদের বিনম্র ও সুদৃঢ় আবেদন, প্ররোচনা সৃষ্টি করবেন না, প্ররোচনার ফাঁদে পা দেবেন না, প্ররোচনা সৃষ্টিকারীদের চিহ্নিত করুন, বিচ্ছিন্ন করুন, বিরত করুন।’’

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে সিপিআই(এম)’র পলিট ব্যুরো বিবৃতি দিয়েছে। সূর্য মিশ্রও সেই বিবৃতির উল্লেখ করে সম্প্রীতির ঐতিহ্য বজায় রাখার আবেদন করেছেন এবং বলেছেন, ‘‘রাজ্য সরকার ও প্রশাসনের সঙ্গে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার প্রশ্নে সবরকম সহযোগিতা করতে হবে।’’ সেই সঙ্গে রাজ্য সরকারের দায়িত্বের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি এ প্রশ্নও রেখেছেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী কি একমত?’’ 

১৯০৫ সালের ১৬ অক্টোবর সাম্প্রদায়িক বিভেদের বিরুদ্ধে রবীন্দ্রনাথের রাখিবন্ধন অনুষ্ঠানের ঐতিহ্য স্মরণ করিয়ে দিয়ে সূর্য মিশ্র একথাও বলেছেন, ‘‘এটাই আমাদের সুমহান ঐতিহ্য এপার এবং ওপার, দুই বাংলার। এই ঐতিহ্যকে কলঙ্কিত হতে দেবেন না।’’ 

এদিকে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিভিন্ন এলাকায় বামপন্থীরা সম্প্রীতি বজায় রাখার এবং ধর্মীয় মৌলবাদীদের প্ররোচনাকে ব্যর্থ করার আহবান জানিয়ে মিছিল ও নানা কর্মসূচি পালন করেছেন। শুক্রবার বিকালে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে গুঞ্জরিয়া হাটে ডিওয়াইএফআই’র উদ্যোগে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক হিংসার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সভায় সংগঠনের জেলা সভাপতি সামী খান বলেন, আমরা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি এবং সম্প্রীতি বজায় রাখতে ধর্মীয় মৌলবাদের বিরুদ্ধে ছাত্র-যুবদের লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করছি। পশ্চিমবঙ্গেও সম্প্রীতির ঐতিহ্য অক্ষুণ্ণ রাখতে হবে। বাংলাদেশে ধর্মীয় মৌলবাদীদের কার্যকলাপের প্রতিবাদে এবং দুই বাংলাতেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অব্যাহত রাখার আবেদন নিয়ে শনিবার কোচবিহারের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল হয়েছে। কোচবিহার শহরে মিছিলের নেতৃত্ব দেন সিপিআই(এম)’র কোচবিহার জেলা সম্পাদক অনন্ত রায়, পার্টিনেতা তারিণী রায়, মহানন্দ সাহা, অমিত দত্ত, সাধন দেব প্রমুখ। কোচবিহার শহরের পাশাপাশি এদিন জেলার তুফানগঞ্জ, দিনহাটা, মাথাভাঙা, মেখলিগঞ্জ বিভিন্ন মহকুমাতে মিছিলে শামিল হন সিপিআই(এম) সহ বামফ্রন্টের নেতা-কর্মীরা। সিপিআই(এম)’র কোচবিহার জেলা সম্পাদক অনন্ত রায় এদিন বলেন, বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণের ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। বাংলাদেশ সহ এই বাংলাতেও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ণ রাখার আবেদন জানিয়েই আমাদের মিছিল। 

Source- Ganashakti